কানাডা

ফ্লাইট দেরী আর বাতিলের অভিযোগ টরেন্টোর পিয়ারসন বিমানবন্দরের দিকে; ক্ষুব্ধ যাত্রীরা

টরেন্টোর পিয়ারসন বিমানবন্দরে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহেই অন্তত দশ শতাংশ ফ্লাইট বাতিল করেছে এয়ার কানাডা। এছাড়া ফ্লাইট দেরী এবং বাতিলের জন্য পরিচিত হয়ে উঠেছে পিয়ারসন বিমানবন্দর। এদিকে সাবেক এনএইচএল খেলোয়ার বিমানবন্দরটিকে বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ স্থান বলে মন্তব্য করার পর মেয়র জন টোরি বলেন, পিয়ারসনের অবস্থা অগ্রহণযোগ্য। এয়ার কানাডার মুখপাত্র পিটার ফিটজপ্যাট্রিক সিটিভি নিউজকে বলেন, পিয়ারসন বিমানবন্দর এয়ারলাইন অপারেশনের আগে পরে বেশকিছু সমস্যা দ্বারা প্রভাবিত। এরমধ্যে রয়েছে কর্মী সঙ্কট, লম্বা সিকিউরিটি এবং কাস্টমস লাইন। এছাড়া এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রলের সীমাব্ধতা তো আছেই।

সম্পর্কিত নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button