কানাডাকোভিড-১৯

কানাডায় জরিমানা সত্ত্বেও স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না অনেকেই

কানাডায় করোনা সংক্রমণরোধে কঠোর বিধিনিষেধ জারি আর আইন অমান্যকারীদের বিপুল অঙ্কের জরিমানা সত্ত্বেও স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না অনেকেই। এতে করে বেড়েই চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কারফিউ উপেক্ষা করে বিভিন্ন শহরে প্রায়ই হচ্ছে বিক্ষোভ-মিছিল।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে করোনা টিকার নানা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার খবরে কানাডায় ভ্যাকসিন গ্রহণে অনেকেই দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভুগলেও, এরই মধ্যে টিকার আওতায় এসেছেন বহু মানুষ। এতে, সাময়িকভাবে কিছুটা স্বস্তি মিললেও, কঠোর বিধিনিষেধ আর ঘরবন্দি জীবনে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছেন অনেকে। অনেকে বলছেন, কাজ নেই, ভ্যাকসিনও নেই। ঠাণ্ডায় রক্ত জমাট বেধে যায়। খুবই আতঙ্কে আছি।

ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে কানাডা সরকারের নানা পদক্ষেপ আর প্রণোদনা সত্ত্বেও দেশটিতে প্রায় প্রতি সপ্তাহেই মারা যাচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এতে, আতঙ্ক বিরাজ করছে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে।এক প্রবাসী বলেন, বাংলাদেশি ভাই-বোন যারা আছেন, তাদের নিয়ে খুবই চিন্তা লাগে। তারা যাতে করোনামুক্ত হয়, সেই দোয়া সব সময় করি।

এদিকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন দিয়ে কুইবেকে ৫৪ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যুর ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছে স্থানীয় প্রশাসন। মাত্র ৩ কোটি ৮০ লাখ মানুষের দেশ কানাডায় এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজারের বেশি।

সম্পর্কিত নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button