বিশ্বযুক্তরাষ্ট্র

বাইডেন প্রশাসনের খাদ্য সহযোগিতা অনগ্রসর মানুষের জন্য

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্দেশে মার্কিন অনগ্রসর মানুষের জন্য সরকারি খাদ্য সহযোগিতা বাড়ানো হচ্ছে। করোনা মহামারির কারণে আমেরিকার জনগণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক নিরাপত্তার এ খাতে ( যা ফুড স্ট্যাম্প নামে পরিচিত) বরাদ্দ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

করোনা মহামারির প্রকোপ থেকে ধীরে ধীরে বেরিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। যদিও কয়েক কোটি মানুষের পর্যাপ্ত খাদ্য প্রাপ্তি নিশ্চিত নয় এখনো। কৃষ্ণাঙ্গ, হিস্পানিক ও অভিবাসী গ্রুপগুলোর মধ্যে এ ধরনের নিম্ন ও মধ্য আয়ের পরিবার বেশি। সাম্প্রতিক নাগরিক আন্দোলনের জের ও মহামারির বাস্তবতায়  জনগণের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।  মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউজম্যাক্স তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, কেন্দ্রীয় কৃষি বিভাগ এ নিয়ে কাজ শুরু করেছে। মহামারির জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নাগরিক প্রণোদনা তহবিল থেকে ফুড স্ট্যাম্পের পরিমাণ ১৫ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছিল। ক্ষমতা গ্রহণের দুই দিনের মাথায় প্রেসিডেন্ট বাইডেন এ–সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছিলেন। বর্ধিত ফুড স্ট্যাম্প দেওয়ার মেয়াদ ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছিল।

ফেডারেল সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ এখন ফুড স্ট্যাম্প দেওয়ার জন্য মাঠপর্যায়ে পরিস্থিতি মূল্যায়ন করছে। ১ অক্টোবর থেকে ফুড স্ট্যাম্প গ্রহীতা ২০ শতাংশ বর্ধিত সাহায্য পেতে পারেন এবং ফুড স্ট্যাম্পের এ বৃদ্ধি স্থায়ী করা হচ্ছে।মহামারির আগে যুক্তরাষ্ট্রের চারজনের একটি নিম্ন বা মধ্য আয়ের পরিবারের জন্য ফুড স্ট্যাম্পের পরিমাণ ছিল মাসে ৬৮০ ডলার। কোন এলাকায় বসবাস, সদস্যদের বয়স, পরিবারের আয় কত, পরিবারে শিশু বা গর্ভবতী কেউ আছে কি না—এসব মূল্যায়ন করে ফুড স্ট্যাম্প দেওয়া হয়। ফুড স্ট্যাম্পের অনুদান থেকে পরিবারগুলো কোনো বিলাসদ্রব্য নয়, নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী কিনতে পারে। লাখ লাখ মার্কিন পরিবার ফুড স্ট্যাম্পের ওপর নির্ভরশীল।

ইউনিভার্সিটি অব কেন্টাকির সেন্টার ফর পভার্টি রিসার্চের পরিচালক জেমস জাইলাইয়াক বলেছেন, নতুন মূল্যায়নের পর চারজনের ফুড স্ট্যাম্প গ্রহীতা মাসে ১৩৬ ডলারের বর্ধিত অনুদান পেতে পারে। কংগ্রেসকে পাশ কাটিয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ফুড স্ট্যাম্প বৃদ্ধির এ পদক্ষেপ নিয়েছেন।জনগণকে খাদ্য সহযোগিতার অর্থ বরাদ্দ নিয়ে কংগ্রেসে বিরোধ হবে। ফুড স্ট্যাম্প গ্রহীতা লোকজন কর্মবিমুখ হয়ে পড়ে এবং এ কর্মসূচির ওপর লোকজনের নির্ভরশীলতা বেড়ে যায় বলে রক্ষণশীলরা সমালোচনা করে আসছেন আগে থেকেই। ডেমোক্র্যাট দলের অনেক আইন প্রণেতাদের মধ্যেও ফুড স্ট্যাম্প নিয়ে স্পষ্ট অবস্থান নেই।সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময় এ কর্মসূচিটির ব্যাপক পরিবর্তন আনার চেষ্টা করা হয়েছিল।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর ফুড স্ট্যাম্প বৃদ্ধি ছাড়া খাদ্য নিরাপত্তার অন্য একটি ক্ষেত্রেও বিরাট উদ্যোগ নিয়েছেন। গ্রীষ্মের দীর্ঘ অবকাশে স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা যাতে বিনা মূল্যে খাবার গ্রহণ করতে পারে, তার জন্য ব্যয় বাড়ানো হয়েছে এবং কর্মসূচিটি এ গ্রীষ্মকালেই চালু হচ্ছে। আসছে শিক্ষাবর্ষে স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে খাবার পাবে।সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শিক্ষার্থীদের জন্য এ খাদ্য সহযোগিতাসহ ফুড স্ট্যাম্পকে নিয়ন্ত্রণ করতে চেয়েছিলেন নানা শর্ত আরোপ করে। প্রেসিডেন্ট বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর ট্রাম্পের অন্যান্য বৈরী নীতির সঙ্গে এটিও পাল্টেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button