Uncategorized

নিউইয়র্ক নগরে চুরি, ছিনতাইসহ নানা ধরনের অপরাধ বেড়েছে

নিউইয়র্ক নগরে চুরি, ছিনতাইসহ নানা ধরনের অপরাধ বেড়েই চলেছে। বছরের শুরুর দিকে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও মার্চ–এপ্রিল মাসে অপরাধ বেড়ে গেছে। ৫ মে নগরের পুলিশ বিভাগ থেকে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বিষয়টি উঠে এসেছে।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সব ধরনের অপরাধ আগের বছরের তুলনায় প্রায় সাড়ে ৩০ শতাংশ বেড়ে গেছে। এর মধ্যে হামলা, চুরি, ছিনতাইসহ নানা অপরাধমূলক ঘটনা সবচেয়ে সবচেয়ে বেশি।নিউইয়র্ক নগরে গোলাগুলির ঘটনাও বেড়েছে। শুধু এপ্রিলে নগরে ১৫৯টি গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে, যা আগের বছরের তুলনায় ১৬৬ শতাংশের বেশি। ২০২০ সালের এপ্রিলে নগরে ৫৬টি গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছিল। এনওয়াইপিডির দেওয়া তথ্যমতে, নগরে গত মাসে ২২৩ জনকে আগ্নেয়াস্ত্র মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আগ্নেয়াস্ত্র মামলায় ২০২০ সালের একই মাসের চেয়ে গ্রেপ্তার হয়েছে ৩ দশমিক ৭ শতাংশের বেশি মানুষ।

এনওয়াইপিডির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নগরে ৬৬ শতাংশের বেশি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর হামলার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে ৩৫ দশমিক ছয় শতাংশ বেশি। নগরে ডাকাতি আগের বছরের চেয়ে সাড়ে ২৮ শতাংশের বেশি বেড়েছে। এপ্রিলে পুলিশ ৮৫৫টি চুরির ঘটনা রেকর্ড করেছে।

নগরের পুলিশ কমিশনার ডারমট শেই বলেন, নিউইয়র্কের মানুষের নিরাপত্তা বিধান করতে তারা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। পুলিশ কর্মকর্তারা নিঃস্বার্থভাবে দিনের পর দিন কাজ করছেন। আইন ও বিচার ব্যবস্থা একসঙ্গে সঠিক কাজ করলে পরিস্থিতির উন্নতি হবে বলে তিনি মনে করেন।এক বছরের বেশি সময় ধরে নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রয়েছে। তবে পরিস্থিতি এখন আগের তুলনায় নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। লকডাউন থেকে নগর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসছে। আবহাওয়ায় গ্রীষ্মের উষ্ণতা ফিরে আসার সঙ্গে সঙ্গে লোকজন ব্যাপকভাবে বাইরে বেরিয়ে আসছে। এ অবস্থায় অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি নগরের জনগণকে আতঙ্কিত করে তুলেছে। ট্রেন বাসে যাত্রীরা প্রায়ই হামলা ও ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছে।

নিউইয়র্ক পুলিশ বলছে, নগরে অপরাধমূলক ঘটনা নিয়ন্ত্রণে পাতাল রেলে জননিরাপত্তা পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া জনবহুল এলাকাগুলোতে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button