কোভিড-১৯ভারত

ভারতে করোনা চিকিৎসায় পানিতে গুলে খাওয়া ওষুধের অনুমোদন

ভারতে মাত্রাছাড়া সংক্রমণের মুখে করোনার আরও এক দেশি প্রতিষেধক জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগের ছাড়পত্র পেল। ভারতের ‘ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন’ (ডিআরডিও) এবং হায়দরাবাদের ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ড. রেড্ডিজ যৌথভাবে ওই প্রতিষেধক তৈরি করেছে।

করোনার এই প্রতিষেধকের নাম ‘২–ডিঅক্সি–ডি–গ্লুকোজ’ (২–ডিজি)। ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়ার (ডিসিজিআই) ছাড়পত্র পাওয়া এ প্রতিষেধকটি আদতে একটি পাউডার, যা পানিতে গুলে খেতে হয়।পৃথিবীতে করোনার যত প্রতিষেধক এ মুহূর্তে প্রয়োগ হচ্ছে, সেগুলোর অধিকাংশই ইনজেকশনের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে। নাকে ড্রপ দেওয়া এক প্রতিষেধকের কার্যকারিতা এখনো পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। সেই অর্থে ‘২–ডিজি’ প্রতিষেধক করোনার প্রথম ‘ওরাল মেডিসিন’।

ডিসিজিআইয়ের বরাতে ভারতের সংবাদ সংস্থা পিটিআই এই খবর দিয়ে জানিয়েছে, গত বছরের মে মাস থেকে অক্টোবর পর্যন্ত এই ওষুধের দ্বিতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালানো হয়। ওষুধটি প্রয়োগ করা হয় ১১০ জন রোগীর শরীরে। তৃতীয় পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন অংশে মোট ১১টি হাসপাতালে ওই পরীক্ষা চালানো হয়। দেখা গেছে, কোভিড আক্রান্ত রোগীরা ওই ওষুধে দ্রুত সুস্থ হচ্ছেন। যাঁদের অক্সিজেনের প্রয়োজন, তাঁদের ক্ষেত্রেও তা কাজে দিচ্ছে। এই ওষুধ প্রয়োগের পর অধিকাংশ কোভিড রোগীর আরটি–পিসিআর পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

সংক্রমণ রোধে ভারতের হাল খুবই কাহিল। দৈনিক সংক্রমণ এখনো ৪ লাখের ওপরে। দৈনিক মৃত্যুহারও ৪ হাজারের মতো। অক্সিজেনের অভাব প্রবল। নতুন এই প্রতিষেধক সেই দিক থেকে বহু মানুষের কাছে আশার আলো হয়ে উঠতে পারে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button