ক্রিকেটখেলা

দল সবাই চলে গেলেন হোটেলে, সাকিব থেকে গেলেন অনুশীলনে

বাংলাদেশ দলের অনুশীলন শেষ দুপুরে। ড্রেসিংরুমে সব গুছিয়ে দলের সবাই চলে গেলেন হোটেলে। গেলেন না শুধু সাকিব আল হাসান। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে রয়ে গেলেন আরও কিছু সময় অনুশীলন করার জন্য। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দলের সঙ্গে বোলিং, ব্যাটিং করার পর দল চলে গেলে চলল সাকিবের একাকী ব্যাটিং অনুশীলন। মূল অনুশীলনের পর ঘণ্টাখানেক বিশ্রাম নিয়ে ইনডোরে গিয়ে আবার অনুশীলন করেছেন ৪০ মিনিটের মতো।

সম্ভবত নিজের ব্যাটিং নিয়ে নিজেই সন্তুষ্ট হতে পারছিলেন না সাকিব। দলের সঙ্গে অনুশীলনের সময় ব্যাটিংয়ে খুব একটা আত্মবিশ্বাসী মনে হয়নি তাঁকে। মাঝমাঠের উইকেটে পেসারদের সামনে ছিলেন কিছুটা এলোমেলো। ক্যাচ তুলেছেন বেশ কয়েকবারই।

ইনডোরে স্পিনারদের বিপক্ষেও নড়বড়ে ছিলেন সাকিব। টাইমিংই যেন মিলছিল না তাঁর। ছন্দ খুঁজে পেতে হয়তো সে জন্যই অনুশীলনে বাড়তি সময় দেওয়া।

ভারত থেকে ফেরার পর ১১ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন শেষে কাল দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সাকিব। আইপিএলেও শেষ দিকে ছিলেন খেলার বাইরে। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেননি শেষ চারটি ম্যাচ। বৃষ্টিতে শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য প্রথম দিনের অনুশীলনটা না হওয়ায় কাল মাঠে ফেরার দিনেও ব্যাটিং-বোলিং করা হয়নি সাকিবেরও। আজ সকালে অনুশীলনের শুরুতে বোলিং করেছেন মাহমুদউল্লাহকে।

তবে বল হাতে স্বচ্ছন্দই মনে হয়েছে তাঁকে। মাঠ থেকে লম্বা সময় দূরে থাকার প্রভাব যেন স্পর্শই করেনি সাকিবকে! নিখুঁত লাইন-লেংথ, বাঁক-গতির বৈচিত্র্য—সবই ছিল। কিছুক্ষণ নতুন এক ডেলিভারির গ্রিপ নিয়েও কাজ করতে দেখা গেল। শুধু ব্যাটিং অনুশীলনেই সাকিবকে নড়বড়ে মনে হচ্ছিল।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২৩ মে। তার আগে ছন্দে ফিরতে মাত্র তিন দিন সময় পাচ্ছেন সাকিব। কাল বিকেএসপির মাঠে নিজেদের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা। ম্যাচ খেলার অবস্থায় ফিরতে প্রস্তুতি ম্যাচটি নিশ্চয়ই কাজে লাগাতে চাইবেন সাকিব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button