খেলাবিশ্ব

ওসাকা নিজেই সরে দাঁড়ালেন

টুর্নামেন্ট কমিটি হুমকি দিয়ে রেখেছিল ফ্রেঞ্চ ওপেন থেকে নাওমি ওসাকাকে বহিষ্কারের। সংবাদ সম্মেলন বর্জনের ঘোষণা দিয়ে তোলপাড় ফেলা জাপানি নারী তারকা সেই অপেক্ষায় না থেকে নিজেই সরে দাঁড়ালেন ফ্রেঞ্চ ওপেন থেকে।

টুইটারে বিশাল এক বিবৃতি দিয়ে রোলাঁ গারো থেকে নাম প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন চারবারের গ্র্যান্ড স্লাম চ্যাম্পিয়ন ওসাকা। ওসাকা লিখেছেন, সবার ভালোর জন্যই সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি, ‘আমার মনে হয়েছে টুর্নামেন্ট, অন্য খেলোয়াড় ও আমার নিজের ভালোর জন্যই সরে দাঁড়ানো উচিত। প্যারিসে এখন সবাই টেনিসেই মনোযোগ দিতে পারবেন। আমি কখনই ঝামেলা হয়ে থাকতে চাইনি। আমি মনে করি, ব্যাপারটা আরও পরিষ্কার করে বোঝাতে পারতাম। সত্যি কথা হলো, আমি ২০১৮ সালের ইউএস ওপেন থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছি।’

বিতর্কের মধ্যেই প্রথম রাউন্ডের ম্যাচটা সরাসরি সেটে জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছিলেন ওসাকা। ২৩ বছর বয়সী তারকা ওই ম্যাচের পর সম্প্রচারক টেলিভিশনের সঙ্গে কথা বললেও ঘোষণামতো যাননি আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে। টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটি এ কারণে ওসাকাকে ১৫ হাজার ডলার জরিমানা করে ও ভবিষ্যতে একই কাজ করলে তাঁকে বাদ দেওয়ার হুমকি দেয়।

আয়োজক কমিটি আরও জানিয়েছিল, প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার চুক্তির শর্তে উল্লেখ থাকা দায়িত্বের মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেওয়ার কথা উল্লেখ আছে। সে দায়িত্ব মেনে চলতে রাজি না হওয়ায় জরিমানা করা হয়েছে। ফ্রেঞ্চ ওপেনের আয়োজকেরা ওসাকাকে নিজ অবস্থান থেকে সরে আসার অনুরোধও করেছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button