ভারত

করোনায় বাতিল হতে পারে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এখনো পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। ফলে এই রাজ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল হতে পারে, সেই আভাস মিলছে এবার।

রাজ্যের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার সময়সূচি আজ বুধবার ঘোষণার কথা ছিল। এই নিয়ে আজ দুপুরে দুই বোর্ডের প্রধানদের এক যৌথ সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল। উচ্চমাধ্যমিক বোর্ড বিদ্যাসাগর ভবনে এই সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা।

এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকার কথা ছিল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সভাপতি মহুয়া দাস এবং মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের। কিন্তু বুধবার সকালে রাজ্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুই পরীক্ষার সময়সূচি আজ ঘোষণা করা হবে না। তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার কলকাতার বিকাশ ভবনে এই দুই পরীক্ষা নিয়ে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক হয়। সেখানে করোনা পরিস্থিতি এবং তৎপরবর্তী অবস্থা নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুসহ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বোর্ডের সভাপতিসহ শীর্ষ কর্মকর্তারা।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৈঠক থেকে বলা হয়েছে, পরীক্ষা নেওয়া যাবে কি না, তা নিয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বিস্তারিত রিপোর্ট দেবে। তারপরই রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নেবে এই মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে কি না।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বলেছে, করোনার কারণে শেষ পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিল হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। যদিও ইতিমধ্যে দিল্লির ইংরেজি মাধ্যমের দুটি কেন্দ্রীয় বোর্ড সিবিএসই ও সিআইএসসিই তাদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে গতকাল। ফলে এবার সেই পথে হাঁটতে পারে পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বোর্ড। জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই করোনার আবহে পরীক্ষা চালাতে ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

এর আগে গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন ও করোনা পরিস্থিতির কারণে এই রাজ্যের মাধ্যমিক বা এসএসসি পরীক্ষা হবে ১ জুন থেকে। কিছুদিন আগে ঘোষণা দেওয়া হয়, আগামী জুলাই মাসে এইচএসসি ও আগস্ট মাসে এসএসসি পরীক্ষা হবে। আজ বুধবার ছিল এসব পরীক্ষার সূচি প্রকাশের দিন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button