ইউরোপকোভিড-১৯বিশ্বসাহায্য সংস্থা

১০০ কোটি ডোজ টিকা পাবে দরিদ্র দেশ: বরিস জনসন

দুই বছর পর জি–৭ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো। এ সম্মেলন প্রসঙ্গে বরিস জনসন বলেন, ‘করোনাভাইরাসের মহামারি মোকাবিলায় স্বার্থপরতা, জাতীয়তাবাদী আচরণ থেকে বেরিয়ে আসব—এ জন্য সারা বিশ্ব আমাদের দিকে তাকিয়েছিল। মহামারি মোকাবিলায় স্বার্থপরতা, জাতীয়তাবাদী আচরণ আমাদের ক্ষতি করেছে। যদিও পুরো বিশ্ব আমাদের দিকে তাকিয়েছিল এ জন্য যে আমরা আমাদের কূটনৈতিক তৎপরতা, আমাদের অর্থ ও বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার ব্যবহার করে এই কোভিড-১৯ মোকাবিলা করব।’

বরিস বলেন, জি-৭-এর নেতারা দরিদ্র দেশগুলোকে যে পরিমাণ ডোজ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তা তাঁরা নিজ থেকে ওই দেশগুলোর হাতে তুলে দেবেন, নয়তো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোভ্যাক্স কর্মসূচিতে দেবেন। যুক্তরাজ্য কোভ্যাক্সে ১০ কোটি টিকার ডোজ দেবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।জি-৭ সম্মেলনের ঘোষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, মহামারি নির্মূল ও ভবিষ্যৎ মহামারি ঠেকাতে বৈশ্বিকভাবে উদ্যোগ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নেতারা। এ পদক্ষেপ শিগগিরই শুরু হবে। এ জন্য যত দ্রুত সম্ভব জনসাধারণকে নিরাপদ টিকা দেওয়া হবে।

বরিস বলেন, ‘আমরা যত দ্রুত সম্ভব টিকা তৈরির চেষ্টা করছি এবং যত দ্রুত সম্ভব এ টিকা বিতরণ করছি। আমরা সরাসরি এ কাজ করছি।

বলা হচ্ছে, ধনী দেশগুলো যে পরিমাণ টিকার ডোজ দিচ্ছে, তা দিয়ে দরিদ্র দেশগুলোর জনসংখ্যার বড় অংশকে টিকা দেওয়া সম্ভব হবে না। তবে বরিস জনসন এ অভিযোগ খারিজ করেছেন। তিনি বলেন, এ পর্যন্ত ১৫০ কোটি ডোজ বণ্টন করা হয়েছে। যুক্তরাজ্য সরকার পদক্ষেপ নিয়েছিল বলে এর ৫০ কোটি টিকা বণ্টন করা সম্ভব হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button