কানাডা

এমপিকে চিঠি, সন্তানে কোলে পার্লামেন্টে প্রবেশ নিষেধ!

নন্দন নিউজ ডেস্ক: ব্রিটিশ লেবার পার্টির এমপি স্টেলা ক্রিসি পার্লামেন্টের বিতর্ক সভায় উপস্থিত হয়েছিলেন তিন মাসের শিশু সন্তানকে কোলে নিয়েই। কিন্তু এই ঘটনায় প্রসংশিত হননি তিনি। বরং তাকে চিঠি পাঠানো হয়েছে ভবিষ্যতে শিশু সন্তানকে নিয়ে হাউস অব কমনেন্সের বৈঠকে প্রবেশ না করার জন্য। সেই বিষয়টি তুলে ধরে টুইট করেছে স্টেলা এবং প্রশ্ন তুলেছেন মায়েদের অধিকার নিয়ে।

স্টেলা ক্রিসির টুইটে ইতিমধ্যে নেট দুনিয়ায় ঝড় উঠেছে। টুইটে তিনি জানিয়েছে, ওয়েস্টমিনস্টার হলে একটি বিতর্ক সভায় মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে তার কোলে ছিল তিন মাসের ছোট শিশু সন্তান। ছোট শিশু সন্তান শুধুমাত্র মায়ের দুধ পান করেন। তাই সন্তানকে নিয়েই উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। তবে সভায় থাকাকালীন এক মুহুর্তের জন্যও কাঁদেনি শিশুটি, বরং সারা সময় ধরে ছিল ঘুমিয়ে।

সভায় স্টেলাকে কিছু না বলা হলেও, দিন শেষে পার্লামেন্ট চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সচিব তাকে ই-মেইল পাঠায়। সেখানে তাকে জানানো হয়, সেপ্টেম্বরে হাউসের সংশোধিত নিয়ম অনুসারে পার্লামেন্টে শিশু নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না কিংবা বসা যাবে না। যা ৪২ নম্বর অনুচ্ছেদে উল্লেখ করা রয়েছে। ঠিক একই নিয়ম ওয়েস্টমিনস্টার হলের কোন বিতর্ক সভার ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।

এই মেইল পাওয়ার পর এমপি স্টেলা বলেন, ‘এই চিঠি আমার কাছে সবচেয়ে বড় সংবাদ। জেনে খুশি হলাম যে এখানে একজন এমপিকে কথা বলতে বাধা দেওয়াই নিয়ম’। তিনি আরও জানান, এর আগেও তিনি কন্যা সন্তান নিয়ে যোগ দিয়েছিলেন সভায়। কিন্তু কখনও তাকে নিয়ম ভাঙার অভিযোগের সম্মুখীন হতে হয়নি।

স্টেলা ক্রিসির মতে এই ধরনের নিয়ম কর্মরত মায়েদের জন্য প্রতি পদে বাধা তৈরি করবে। এমন ঘটনায় হাউসের স্পিকার স্যার লিন্ডেস হয়েল তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘যেকোন নিয়মকে তার প্রেক্ষাপটের সাপেক্ষে বিচার-বিবেচনা করা উচিত। কোন নিয়ম সময়ের সাথে এবং প্রয়োজন অনুসারে বদলাতেই পারে’।

একই সাথে এমপিদের উদ্দেশ্যে হয়েল আরও জানান, হাউসের পুরো কাজেই বাবা-মায়েরা যোগ দেবেন এবং তা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ। তাই এর জন্য আমাদের নার্সারিও রয়েছে। তবে স্টেলার শিশু কোলে সভায় যোগ দেওয়ার ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগের এমন ঘটনা আগে ঘটেছে। যা নেট দুনিয়ায় সাড়াও ফেলেছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button