যুক্তরাষ্ট্র

কেনটাকিতে অসময়ের টর্নেডোয় মৃত্যু বেড়ে ১০০

নন্দন নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যপশ্চিম ও দক্ষিণাঞ্চলে শক্তিশালী টর্নেডো আঘাত হেনেছে। টর্নেডোয় লন্ডভন্ড কেনটাকি অঙ্গরাজ্যে অন্তত ১০০ জনের প্রাণহানির শঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। ২০০ মাইল এলাকাজুড়ে টর্নেডোর আঘাতে ঘরবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ভেঙে পড়েছে।

ধ্বংসস্তূপের ভেতর থেকে জীবিত ব্যক্তিদের উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা। স্থানীয় সময় গত শুক্রবার রাতে ৩৬৫ কিলোমিটার গতিতে টর্নেডোটি কেনটাকি অঙ্গরাজ্যজুড়ে আঘাত হানে। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

শীতের মাসগুলোয় এ ধরনের শক্তিশালী টর্নেডোকে অস্বাভাবিক বলছেন আবহাওয়াবিদেরা। টর্নেডো ও অগ্নিকাণ্ডে কেনটাকিতে একটি মোমবাতির কারখানা ও একাধিক পুলিশ স্টেশন বিধ্বস্ত হয়েছে। পাশের মিজৌরি অঙ্গরাজ্যে একটি নার্সিংহোম ভেঙে গেছে। ইলিনয়ে আমাজনের গুদামঘর বিধ্বস্ত হয়ে ছয় কর্মী নিহত হয়েছেন।

২০০ মাইল এলাকাজুড়ে টর্নেডোর আঘাতে ঘরবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ভেঙে পড়েছেছবি: রয়টার্স

এবারের টর্নেডোকে কেনটাকির ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ বলে আখ্যায়িত করেছেন গভর্নর অ্যান্ডি বেশিয়ার। তিনি জানান, মেফিল্ড শহরে মোমবাতি কারখানা থেকে ৪০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সময় কারখানাটির ভেতর প্রায় ১১০ জন কর্মী ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে কেনটাকির গভর্নর বলেন, ‘আমার জীবনে এমন বিপর্যয় কখনো দেখিনি। এই কষ্ট ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। এখানে, এই কেনটাকিতে সম্ভবত ১০০ জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।’

উদ্ধার তৎপরতায় সহায়তার জন্য ন্যাশনাল গার্ডের ১৮৯ জন সদস্য মোতায়েনের কথা জানিয়েছেন বেশিয়ার। মূলত, মেফিল্ডের বেশির ভাগ এলাকাজুড়ে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। কেনটাকির দক্ষিণ-পশ্চিমের ছোট একটি শহর মেফিল্ড। এ শহরে ১০ হাজার মানুষের বাস। এখানেই মিলিত হয়েছে ইলিনয়, মিজৌরি ও আরাকানসাস অঙ্গরাজ্য।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোয় পোস্ট হওয়া ভিডিও ফুটেজ ও ছবিতে মেফিল্ড শহরে ইটের তৈরি ভবনগুলো মাটির সঙ্গে মিশে যেতে দেখা যাচ্ছে। বাড়িঘরের পাশে রাখা গাড়িগুলো ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েছে। গ্রেভস কাউন্টির ঐতিহ্যবাহী একটি গির্জা ভেঙে পড়েছে। কাছাকাছি আরেকটি গির্জার একাংশও ভেঙেছে।

এ বিপর্যয়কে সম্ভবত যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় টর্নেডোর একটি বলে উল্লেখ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার তিনি কেনটাকিতে জাতীয় জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করেছেন। এ কারণে ফেডারেল সরকারের তরফ থেকে তহবিল ও অন্যান্য সহযোগিতা পাবে কেনটাকি।

শক্তিশালী এই টর্নেডোতে বিপর্যস্ত সব এলাকাকে সাহায্য করার জন্য ফেডারেল সরকার সম্ভাব্য সবকিছু করবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন জো বাইডেন।

সম্পর্কিত নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button