যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে আড়াই হাজার ফ্লাইট বাতিল

নন্দন নিউজ ডেস্ক: করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ ঠেকাতে এবং তুষারপাতের কারণে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে আড়াই হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। ক্রিসমাস মৌসুমে দেশটিতে একদিনে ফ্লাইট বাতিলের হিসাবে এটিই সর্বোচ্চ। খবর বিবিসির।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ রুখতে ক্রিসমাস ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের অধিকাংশ দেশ। ফলে সপ্তাহজুড়ে ফ্লাইট বাতিলের ঘোষণা আসছেই। শনিবার (২ জানুয়ারি) বিশ্বজুড়ে প্রায় চার হাজার ৪০০ ফ্লাইট বাতিল করা হয়। এর মধ্যে শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই বাতিল করা হয়েছে দুই হাজার ৫০০টি ফ্লাইট।

এতে আরও বলা হয়, করোনার সংক্রমণ রুখতে নীতিগত যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার আওতায় প্লেনের কর্মীদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে বিশ্বের বড় বড় এয়ারলাইন্সগুলো হিমশিম খাচ্ছে। ফলে ক্রিমসাসের ছুটিতে ভ্রমণে বেরিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যাঞ্চল প্রবল তুষারপাতের কবলে পড়েছে। ঢেকে গেছে সেখানকার বেশ কয়েকটি বিমানবন্দর। ফলে শিকাগো-ও’হেয়ার এবং মিডওয়ে বিমানবন্দরসহ বেশ কয়েকটি বিমানবন্দর থেকে সহস্রাধিক ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ওমিক্রনের সংক্রমণ বাড়ায় এবং দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে শনিবারের সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। বিষয়টি যাত্রীদের আগেই জানানো হয়েছে। আশা করি- তারা পুনরায় টিকিট বুকিং করতে অথবা জরুরি প্রয়োজনে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২৪ ডিসেম্বর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইট বাতিল শুরু হয়। ক্রিমমাসের ছুটিতেও অনেক ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। এক সপ্তাহে দেশটির অন্তত ১২ হাজার ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button