ইউরোপবিশ্ব

টনি ব্লেয়ারের নাইট উপাধি কেড়ে নিতে ৭ লাখ মানুষের আবেদন

নন্দন নিউজ ডেস্ক: সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারের নাইট উপাধি কেড়ে নেয়ার জন্য রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে প্রায় সাত লাখ মানুষ আবেদন জানিয়েছেন। গত সপ্তাহে রানি এলিজাবেথ সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারকে এই উপাধিতে ভূষিত করেন।

এর বিরোধিতা করে এবং নাইট উপাধি কেড়ে নেয়ার দাবি জানিয়ে যেসব মানুষ আবেদনে সই করেছেন তারা বলছেন, ২০০৩ সালে ইরাকে যে মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে সামরিক আগ্রাসন চালানো হয় তার জন্য টনি ব্লেয়ারের বিচার হওয়া উচিত।

আবেদনকারীরা বলছেন, অবৈধভাবে ইরাকে আগ্রাসন চালানো হয়েছে এবং সেজন্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের পাশাপাশি টনি ব্লেয়ারও সমানভাবে দায়ী। আবেদনকারীরা টনি ব্লেয়ারকে যুদ্ধাপরাধী বলে আখ্যায়িত করেছেন।

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারকে দেশের সর্বোচ্চ সম্মানিত খেতাব নাইট উপাধিতে ভূষিত করলেও আবেদনকারীরা বলছেন টনি ব্লেয়ার হচ্ছেন বিশ্বের সবচেয়ে অপছন্দনীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের একজন। ১৯৯৭ সাল থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত তিনি ক্ষমতায় ছিলেন।

ব্রিটিশ সমাজে এই ঘোষণার গভীর নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে এবং তা প্রতি মুহূর্তেই বাড়ছে। ইরাক থেকে যুদ্ধফেরত ব্রিটিশ সেনারা বলছেন, নাইট উপাধি দেয়ার আগে এই ব্যবস্থা নিয়ে আরও অনেক বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা দরকার। এ কথার মধ্যদিয়ে তারা মূলত ব্লেয়ারের নাইট উপাধিতে ভূষিত করার বিরোধিতা করেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button