এশিয়াবিশ্বযুক্তরাষ্ট্র

‘আরইভিল’-এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে গ্রেপ্তার আরো ছয় জন

নন্দন নিউজ ডেস্ক: হ্যাকারদের দল ‘আরইভিল’-এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে আরো ছয় ব্যক্তি গ্রেপ্তার হয়েছেন রাশিয়ায়। অর্থ পাচারের অভিযোগ তদন্তে গ্রেপ্তারকৃতদের দুই মাসের রিমান্ডে পাঠিয়েছে মস্কোর আদালত।

যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে আরইভিল ভেঙে দেওয়ার দাবি করেছে রাশিয়া কর্তৃপক্ষ। ওই ঘোষণার একদিন পরেই গ্রেপ্তারকৃত ছয়জনকে রিমান্ডে পাঠালো মস্কোর আদালত।

মস্কোর আদালতে গ্রেপ্তারকৃতদের মিখাইল গোলোভাচুক, রুসলান খানসিভায়রভ, দিমিত্রি কোরোকায়েভ, অ্যালেক্সেই মালোজেমভ, আর্তিওম জায়েটস এবং ডানিল পুজিরেভস্কি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

সমালোচকরা এই ঘটনাকে দেখছেন যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার পারস্পারিক সহযোগিতার বিরল নিদর্শন হিসেবে। ইউক্রেইন প্রশ্নে দুই দেশের মধ্যে দ্বন্দ্ব যখন ইউরোপ জুড়ে উত্তাপ ছড়াচ্ছে, ঠিক সে সময়েই আরইভিল হ্যাকার দলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করে আদালতে তুললো রাশিয়ার কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধের ভিত্তিতে আরইভিল সদস্যদের ধরতে শুক্রবার ২৫টি ঠিকানায় অভিযান চালিয়ে ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করার খবর জানিয়েছে রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থা এফএসবি এবং স্থানীয় পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে জব্দ করা হয়েছে ২০টি বিলাসবহুল গাড়ি, ছয় লাখ ডলারের কম্পিউটার যন্ত্রাংশ।

আরইভিল সদস্যদের ধরতে পরিচালিত অভিযানে ৪২ কোটি ৬০ লাখ রুবল এবং চার লাখ ৪০ হাজার পাউন্ড সমমূল্যের ক্রিপ্টোকারেন্সি উদ্ধারের খবর জানিয়েছিল বিবিসি।

এই গ্রেপ্তারের ঘটনাকে স্বাগত জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আরইভিল-এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হ্যাকারদের পরিচয় এবং অবস্থান সংশ্লিষ্ট তথ্যের জন্য এক কোটি ডলার পুরষ্কার ঘোষণা করেছিল মার্কিন সরকার।

তবে, সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে,  গ্রেপ্তারকৃতরা আরইভিল সদস্য হলেও রাশিয়ার নাগরিকদের মার্কিন কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হবে না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button