যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে টানা দুই বছর ডায়াবেটিসে মৃত্যু লাখ ছাড়িয়েছে

নন্দন নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে ২০২১ সালেও ডায়াবেটিস জনিত রোগে ভুগে এক লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে টানা দুই বছর দেশটিতে এ রোগে মৃত্যু লাখ ছাড়াল।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশেষজ্ঞ (ন্যাশনাল ক্লিনিক্যাল কেয়ার কমিশন) প্যানেল কংগ্রেসে এ তথ্য তুলে ধরে ডায়াবেটিসের চিকিৎসা সেবা এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর পরামর্শ দিয়েছে। তারা শুধুমাত্র চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর নির্ভরশীল না থেকে এই রোগ প্রতিরোধে অন্যান্য ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দিয়েছেন।

এ ‍মাসের শুরুতে প্রকাশিত অন্য একটি প্রতিবেদনে ডায়াবেটিস রুখতে বর্তমান কৌশলে বিস্তারিত পরিবর্তন আনার আহ্বান জানানো হয়। যার মধ্যে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়াকে উৎসাহিত করা, কাজের ক্ষেত্রে মাতৃত্বকালীন ছুটি নিশ্চিত করা, চিনিজাত পানীয়র উপর অধিক করারোপ এবং সাশ্রয়ী মূল্যে আবাসনের সুযোগ বৃদ্ধিসহ আরও বেশ কিছু ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলা হয়েছে।

শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, সারা বিশ্বেই ডায়াবেটিস আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে মানুষের মৃত্যুর কারণ জানতে করা তালিকায় সাত নম্বরে ছিল ডায়াবেটিস। দেশটিতে ওই বছর ৮৭ হাজারের বেশি মানুষ এ রোগ জনিত কারণে মারা যান।

গত দুই বছরে মৃত্যু আরও বেড়েছে। এর কারণ হিসেবে কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে ডায়াবেটিসের মত দীর্ঘমেয়াদী রোগের চিকিৎসার সুযোগ সীমিত হওয়া এবং ডায়াবেটিস আক্রান্তদের কোভিড হলে অধিক জটিলতা দেখা দেওয়া ও মৃত্যুর ঝুঁকি বেড়ে যাওয়াকে দায়ী মনে করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে ডায়াবেটিস জনিত কারণে মৃত্যুর সংখ্যা ১৭ শতাংশ এবং ২০২১ সালে ১৫ শতাংশ বেড়েছে।

মহামারী বিশেষজ্ঞ ডা. পল সু রয়টার্সকে বলেন, ‘‘টানা দ্বিতীয় বছর ডায়াবেটিসে এত মানুষের মৃত্যু নিশ্চিতভাবেই সতর্কবার্তা দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। যেখানে টাইপ ২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধযোগ্য সেখানে এ রোগে এত মানুষের মৃত্যু হওয়া আরও বেশি দুঃখের।”

ডায়াবেটিসের নানা ধরনের মধ্যে টাইপ ২ ধরনে মানুষ বেশি আক্রন্ত হয়। স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের মাধ্যমে এই রোগে আক্রান্ত হলেও সুস্থ জীবনযাপন করা সম্ভব।

ন্যাশনাল ক্লিনিক্যাল কেয়ার কমিশন’এর তৈরি করা প্রতিবেদনে বলা হয়, আরও অধিক মানুষ টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়া রুখতে যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই আরও বিস্তারিত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এছাড়াও যারা এরই মধ্যে আক্রন্ত হয়েছেন, তাদের যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে যাতে তাদের জীবন ঝুঁকি মধ্যে না পড়ে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় তিন কোটি ৭০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। যা দেশটির মোট জনসংখ্যার ১১ শতাংশ। সেখানে যেভাবে এ রোগের বিস্তার ঘটছে, তাতে প্রতি তিনজনে একজন আমেরিকান জীবদ্দশায় ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হবেন।

সম্পর্কিত নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button