যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্যে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইউনিস, উচ্চ সতর্কতা জারি

নন্দন নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের উপকূলে আঘাত হানতে যাচ্ছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইউনিস। স্থানীয় সময় আজ শুক্রবার ঘণ্টায় ৯০ মাইল বেগে ঝড়টি আছড়ে পড়তে পারে বলে আভাস দিয়েছে দেশটির আবহাওয়া দপ্তর। ইতিমধ্যে লন্ডন এবং ইংল্যান্ডের পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এলাকায় উচ্চ সতর্কতা (রেড অ্যালার্ট) জারি করা হয়েছে। বাড়ি থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে লাখো মানুষকে। খবর বিবিসির।

যুক্তরাজ্যে ঘূর্ণিঝড় ডুডলির তাণ্ডবের এক সপ্তাহের মাথায় ঘূর্ণিঝড় ইউনিস আঘাত হানতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে দেশটিতে বেশ কয়েকটি আবহাওয়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ডেভন, কর্নওয়াল, সামারসেট ও সাউথ ওয়েলসের উপকূলীয় এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। লন্ডন এবং ইংল্যান্ডের পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এলাকায়ও জারি হয়েছে উচ্চ বিপৎসংকেত। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত এ সতর্কতা বলবৎ থাকবে। যুক্তরাজ্যে আবহাওয়া দপ্তরের উচ্চ সতর্কতা জারির ঘটনা বিরল। এর মানে হলো ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ঘরের ছাদ বাতাসে উড়ে যেতে পারে, গাছপালা শিকড়সহ উপড়ে পড়তে পারে এবং বিদ্যুৎ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হতে পারে। এ সতর্কতার মধ্য দিয়ে আরও আভাস দেওয়া হয়, ধ্বংসাবশেষগুলো বাতাসে উড়তে পারে এবং সেগুলোর আঘাতে প্রাণহানিও ঘটতে পারে।

এ ছাড়া স্কটল্যান্ড, নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড ও নর্দার্ন ইংল্যান্ডে তুষারপাতজনিত হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আর মিডল্যান্ডস, উত্তর-পূর্ব ইংল্যান্ড, দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ড, ওয়েলস ও ওয়েস্ট মিডল্যান্ডসের কিছু অংশে ঝোড়ো বাতাসজনিত হলুদ সতর্কতা দেওয়া হয়েছে।

ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের নিজ নিজ ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ রাখতে এবং গ্যারেজ থেকে গাড়ি বের না করতে বলা হয়েছে। সম্ভব হলে গাছপালা ও দেয়াল থেকে দূরে থাকারও পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ঝোড়ো বাতাসের কারণে আজ কর্নওয়াল, ডেভন, সামারসেট ও ব্রিস্টলে কয়েক শ স্কুল বন্ধ রাখা হয়েছে। ওয়েলসের প্রায় সব কটি কাউন্সিল জানিয়েছে, শুক্রবার তাদের স্কুলগুলো বন্ধ থাকবে। এদিন ওয়েলসের কিছু বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসও বন্ধ থাকতে পারে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউনিসকে গত তিন দশকে যুক্তরাজ্যে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড় বলে মনে করা হচ্ছে।

বিবিসির আবহাওয়াবিদ বেন রিচ বলেছেন, ইউনিসের কারণে বিপুল ক্ষয়ক্ষতি এবং উপকূলীয় এলাকায় বন্যা হওয়ার আশঙ্কা করছেন তিনি। তবে এ ঘূর্ণিঝড় কতটা ভয়ংকর হবে, তা সুনির্দিষ্টভাবে বলা অসম্ভব বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

সরকারি একটি সূত্র বিবিসিকে জানিয়েছে, তারা ইউনিসকে হালকাভাবে নিচ্ছে না। ঘূর্ণিঝড়-পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত আছে তারা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button