এশিয়াবিশ্ব

দৃষ্টি এখন ইউক্রেইনের ওডেসায়, কতটা প্রস্তুত এই বন্দর নগরী

নন্দন নিউজ ডেস্ক: ইউক্রেইনের রাজধানী কিইভ ও এর আশপাশ ছেড়ে এবার হামলার মোড় ঘুরিয়ে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে সংগঠিত হচ্ছে রুশ বাহিনী। সবার দৃষ্টি এখন এই বন্দর নগরীর দিকে, যেখানে স্থানীয় সময় রোববার সকালেও রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে।

এর আগের দিন ওডেসার একটি আবাসিক এলাকায় তিনটি রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন স্থানীয় গভর্নর মাকসিম মারচেনকো।রাশিয়ার দখলে থাকা ক্রাইমিয়া উপদ্বীপ থেকে ওডেসায় তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর অভিযোগ করেন তিনি।

বিবিসি জানায়, রোববার সকালের হামলার পর ওডেসার আকাশে দেখা গেছে ঘন কালো ধোঁয়ার কুন্ডলি। রাশিয়া ওই এলাকার তেলক্ষেত্রগুলোকে নিশানা করে হামলা চালানোর দাবি করেছে। তবে হামলায় হতাহতের কোনও খবর জানায়নি ইউক্রেইন।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ইন্টারফ্যাক্স বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, রুশ বাহিনী ওডেসা অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে তেল শোধনাগার এবং জ্বালানির তিনটি মজুদ ধ্বংস করেছে।

ওডেসা কয়েক সপ্তাহ ধরে আসন্ন হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর নগরী ওডেসা কৃষ্ণ সাগর উপকূলের কৌশলগত একটি অঞ্চল। রুশ বাহিনী সেদিকে মোড় নিয়েছে।

নগরীর বাসিন্দারা সরে গেছে, ক্যাফে ও ট্রামগুলো খালি হয়ে গেছে। কারণ, রাস্তা রুশ ট্যাঙ্কের দখলে চলে গেছে। বিখ্যাত স্মৃতিস্তম্ভগুলো সুরক্ষার জন্য ঘিরে রাখা হয়েছে বালির ব্যাগে।

তবে বিবিসির সংবাদদাতা গত সপ্তাহে বলেছেন, বিমান হামলার সাইরেন, প্রতিবেশীদের সতর্ককতা, রাশিয়ার হামলার আশঙ্কার মধ্যেই নগরীর সবকিছুই সতর্কভাবে খুলতে শুরু করেছিল তখন থেকেই। এই আস্থা আংশিকভাবে কৃষ্ণ সাগর উপকূলে রাশিয়ার অগ্রগতি থমকে থাকার ফল বলে মনে করা হচ্ছে।

কিন্তু ওডেসা কতটা প্রস্তুত? ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি সতর্ক করে দিয়ে এরই মধ্যে বলছেন, রুশ বাহিনী এখন দক্ষিণ এবং পূর্ব অঞ্চল দখলের দিকে মনোনিবেশ করেছে।

কিছু বিশ্লেষক মনে করেন, প্রথমেই স্থলভাগে একটি ঘাঁটি স্থাপন করা ছাড়া সমুদ্রপথে ওডেসা দখলে নেওয়া রাশিয়ার জন্য কঠিন হবে।

তাছাড়া, নগরীর প্রায় আড়াই হাজার কিলোমিটার বিস্তীর্ণ ভুগর্ভস্থ টানেলগুলোকে এরই মধ্যে বিমান হামলার আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে তৈরি করে নেওয়া হচ্ছে। ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেছেন, ইউক্রেইনীয় বাহিনী পূর্ব এবং দক্ষিণে প্রতিরক্ষা সক্ষমতা বাড়াচ্ছে।

এ পরিস্থিতিতে যুক্তরাজ্য সরকার রুশ যুদ্ধজাহাজ ডুবিয়ে দিতে ইউক্রেইনকে জাহাজ-বিরোধী ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করতে চায়। ‘দ্য সানডে টাইমস’ এর বরাত দিয়ে রোববার বিবিসি এক প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে।

‘দ্য সানডে টাইমস’ জানায়, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মন্ত্রীদের বলেছেন, তিনি রুশ বাহিনীকে ওডেসায় অগ্রসর হতে বাধা দিতে অস্ত্র সরবরাহ করতে চান।

সম্পর্কিত নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button